আজ শুক্রবার,২৩শে শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,৭ই আগস্ট ২০২০ খ্রিস্টাব্দ,রাত ৩:১৮

উপহার হিসেবে বই বেছে নিন

Print This Post Print This Post

বই মানুষের বন্ধু। বই পড়ে মানুষ জ্ঞান লাভ করে।
তবে সেটা কিন্তু ভালো বই হওয়া চাই। বই পড়ার মাধ্যমে মানুষ তার সুপ্ত প্রতিভা বিকাশিত করতে পারে অনায়াসে। বই পড়ে মানুষ ফিরে পায় অন্ধকার থেকে আলোর পথ। বই একদিন সাধারন মানুষকে যোগ্য মানুষরুপে গড়ে তুলতে সাহায্য করে।

আমরা আমাদের প্রিয়জনদের বিভিন্ন সময় বিভিন্ন গিফট বা উপহার দিয়ে থাকি। সেই গিফট টা যদি বই হয় তাহলে তো সোনায় সোহাগা।

যেমন আমাদের গিফট দেওয়াও হল অন্যদিকে আমাদের সদকায়ে জারিয়ার সওয়াব অব্যাহত থাকল। যেমন ধরুন আপনি একটা বই দিলেন আপনার প্রিয়জনকে। সে বই টা পড়ে তার জীবনের মোড় ঘুরে গেল। কোনো পথহারা পথিক ফিরে পেল পথের দিশা। সে বই টা নিজে পড়ে অন্য আরেকজনকে পড়তে দিল তাতেও আপনি সওয়াব পেতে থাকবেন।

চাই আপনি বেঁচে থাকেন বা মারা যান। যত মানুষ ঐ আপনার দেওয়া বইটা থেকে উপকৃত হবে তার একভাগ সওয়াব আপনার আমলনামায় পৌছে যাবে ইনশাআল্লাহ।

তবে সেই গিফটের বই গুলো যেন মানসম্মত হওয়া চাই। বর্তমান সমকালীন প্রকাশনির প্রকাশিত বই গুলো খুবই ভালো আবার মানসম্মত বই। তবে অন্যন্য প্রকাশনীর বই খারাপ, তা কিন্তু একদম নয়। সমকালিনের বিশেষ করে ফেরা, প্রত্যাবর্তন, মা, মা, মা এবং বাবা, বেলা ফুরাবার আগে, তিনিই আমার রব, সবর, জীবন পথে সফল হতে, যে জীবন মরীচিকা, গল্পগুলো অন্যরকম। এছাড়া হতাশ হবেন না, সুখময় জীবনের খোঁজে, ইত্যাদি ভালো বই। ড. আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর রহঃ এর লিখিত বইগুলোও গিফট হিসেবে দেওয়া যেতে পারে।

নবিজী ( সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের) সিরাত গ্রন্থ। সাহাবাদের জীবনী সংক্রান্ত বিভিন্ন বই। বিভিন্ন মনীষীদের জীবনী। এক কথায় বইটা যেন উপকারী হওয়া চাই।

তাই আসুন!
আগামী থেকে আমরা আমাদের প্রিয়জনদেরকে গিফট হিসেবে বই দিয়ে সদকায়ে জারিয়ার সওয়াব অব্যাহত রাখি। আল্লাহ তায়ালা আমাদের বুঝ দান করুন। (আমীন)

লেখক : মুহাঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, ঝিনাইদহ।

এ জাতীয় আরো সংবাদ