আজ বৃহস্পতিবার,১লা শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,১৬ই জুলাই ২০২০ খ্রিস্টাব্দ,রাত ৮:৪৩

করোনা আতঙ্কের মধ্যেই কুষ্টিয়ায় জমজমাট পিঁয়াজের হাট

Print This Post Print This Post

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:
করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে সারা দেশে সব গণজমায়েত বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হলেও কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে চলছে জমজমাট পেঁয়াজের হাট। বৃহস্পতিবার(২ এপ্রিল) সকালেই উপজেলার বাঁশগ্রাম বাজারে অন্য দিনের মতই পেঁয়াজর হাটে লোক সমাগম হয় কেনাবেচার জন্য। তবে গণজমায়েত কমাতে খবর পেয়ে পুুুলিশ হাট ভেঙে দিলেও রাস্তার উপর স্বল্প পরিসরে বসানো হয় হাট। গত সপ্তাহেও নির্দেশনা অমান্য করে হাট বসিয়েছিল ইজারাদার।

সরেজমিনে দেখা গেছে, প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে হাট বসানো হয়। হাটে শতশত কৃষক আসেন পেঁয়াজ নিয়ে। ব্যাপারীরাও এ সময় পেঁয়াজ কেনেন। করোনা প্রতিকারে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা ছাড়াই হাটে গণজমায়েত হতে দেখা যায় কৃষক ও ব্যাপারীদের।

ঝিনাইদহ জেলার শৈলকূপা থেকে হাটে আসা শফিকুল নামের এক কৃষক জানান, করোনার কারণে এলাকার হাট বন্ধ থাকায় সংসারের খরচ চালাতে ও শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধের জন্য ২০ মণ পিঁয়াজ নিয়ে খুব সকালেই বাঁশগ্রামে হাটে আসেন। কিন্তু পুলিশ হাট ভেঙে দেওয়াই ফিরে যান।

হরিনারায়ন পুর থেকে আগত কৃষক রুহুল আমিন জানান, ১০ মণ পিঁয়াজ ৮০০ থেকে ৮৫০ টাকা দরে বিক্রি করেছেন।

বাঁশগ্রাম বাজার কমিটি জানায়, এটি পেঁয়াজের অন্যতম বড় হাট। এ হাটে সারা দেশ থেকে ব্যাপারীরা আসেন পেঁয়াজ কিনতে। হাজার হাজার মণ পেঁয়াজ আসে এই বাজারে। এখন পেঁয়াজের ভরা মৌসুম চলছে। তাই পেঁয়াজের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে এবং কৃষকদের প্রয়োজন মেটাতে হাট বসার কোন বিকল্প নেই।

পিঁয়াজ হাটের ইজারাদার লোকমান হোসেন জানান, হাটের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হলেও খুব সকালেই দুর দুরান্তর হতে কৃষক পিঁয়াজ নিয়ে হাটে হাজির হয়।ব্যাপারীরাও এসেছিল। তিনি আরো জানান, বাজার কমিটির লোকজন হাটে পৌছানোর আগেই পুলিশ হাট ভেঙে দেয়।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, করোনা ভাইরাসের কারণে জেলার সকল হাট-বাজার আপাতত বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। এ জন্য মাইকিংও করা হয়েছে। ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

বাঁশগ্রাম পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এস আই রেজাউল ইসলাম জানান, ঐতিহ্যবাহী হাট হওয়ায় খুব সকালেই দূর-দূরান্তর হতে পিঁয়াজ নিয়ে কৃষক হাটে হাজির হয়।খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে হাট ভেঙে দেওয়া হয়।

এ জাতীয় আরো সংবাদ