আজ শুক্রবার,৩রা বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,১৬ই এপ্রিল ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,সন্ধ্যা ৭:৪১

দাইয়ূছের পরিচয় ও পরিণাম

Print This Post Print This Post

ইসলামী ডেস্ক :
দাইয়ূছ ঐ সমস্ত পুরুষদেরকে বলা হয় যারা নিজের স্ত্রী বা পরিবারকে বেহায়াপনার প্রশ্রয় দেয় বা ইসলামের বিধান পালনের ব্যাপারে শিথিলতা প্রদর্শন করে। দাইয়ূছ ব্যক্তি কবীরা গুনাহকারী। এবং তার পরিণতি মারাত্মক ভয়াবহ।

দায়ূছের পরিণতি সম্পর্কে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন:
দাইয়ূছ কখনোই জান্নাতে প্রবেশ করবে না’(১)

আব্দুল্লাহ ইবনে উমর রাযি.থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন:

‘তিন ব্যক্তির জন্য আল্লাহ তায়ালা জান্নাত হারাম করে দিয়েছেন। ( তারা হলো) নিয়মিত শরাবপানকারী ( মদপানকারী),মাতা-পিতার অবাধ্য সন্তান, এবং দাইয়ূছ;যে পরিবারে বেহায়াপনাকে প্রশ্রয় দেয়,জিইয়ে রাখে'(২)

অনেকের মনে এই প্রশ্ন উদয় হতে পারে যে, বেহায়াপনার প্রশ্রয় দেওয়া বলতে কি বুঝায়?
চলুন জেনে আসি এর উত্তর!

আপনার পরিবারে স্ত্রী, মেয়ে, বোন, মা বেপর্দায় চলাফেরা করে আপনি তাদেরকে পর্দা করতে বলেন না, তাহলে আপনি দাইয়ূছ।

আপনার পরিবারে গান-সিনেমা চলে আপনি সেগুলো বন্ধ করতে কোনো পদক্ষেপ গ্রহন করেন না, তাহলে আপনি দাইয়ূছ। আপনার পরিবারে ইসলামিক বিধান পালনের ক্ষেত্রে কঠোরতা প্রদর্শন না করে শিথিলতা প্রদর্শন করেন, তাহলে আপনি দাইয়ূছ।

আপনি আপনার পরিবারের অভিভাবক। আপনার দায়িত্ব পুরো পরিবারকে ইসলামের গণ্ডির মধ্যে আটকে রাখা। তাদের পুঙ্খানুপুঙ্খ খোঁজ-খবর রাখা। সুবিধা-অসুবিধা জিজ্ঞেস করা।

আপনার মেয়ে পড়তে গিয়ে অতিরিক্ত সময় নষ্ট করে কিনা সেদিকে খেয়াল রাখুন। শালীন পোশাকে বের হয় কিনা সেটা লক্ষ্য করুন। আপনার বোনের দিকে কড়া নজর রাখুন। স্ত্রীর প্রতিও তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রাখুন। এক কথায় আপনার স্ত্রী, বোন, মেয়ে এবং পরিবারের প্রতিটা সদস্যর বেহায়াপনামূলক কাজ-কর্মের ব্যাপারে আপনি কঠোর দৃষ্টি রাখুন। মনে রাখবেন যে আপনি আপনার পরিবারের একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তি। আর আপনি আপনার দায়িত্ব পালনে শিথিলতা প্রদর্শন করে কখনো পার পেয়ে যাবেন না। অবশ্যই আপনাকে জিজ্ঞাসা করা হবে।

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহী ওয়া সাল্লাম বলেছেন:
‘প্রতিটি মানুষই দায়িত্বশীল। সুতরাং প্রত্যেকেই অবশ্যই তার অধীনস্থদের দায়িত্বশীলতা বিষয়ে জিজ্ঞাসিত হবে। দেশের শাসক জনগণের দায়িত্বশীল। সে তার দায়িত্বশীলতার ব্যাপারে জবাবদিহী করবে। একজন পুরুষ তার পরিবারের দায়িত্বশীল। অতএব, সে তার দায়িত্বশীলতার বিষয়ে জিজ্ঞাসিত হবে। স্ত্রী তার স্বামী ও সন্তানের দায়িত্বশীল। কাজেই সে তার দায়িত্বশীলতার বিষয়ে জিজ্ঞাসিতা হবে।তোমরা প্রত্যেকেই দায়িত্বশীল। অতএব, প্রত্যেকেই নিজ নিজ অধীনস্থদের দায়িত্বশীলতার ব্যাপারে জিজ্ঞাসিত হবে(৩)

যদি পরিবারের সদস্যদের কোনো অশ্লীল, বেহায়াপনামূলক কর্মকান্ড করতে দেখেন তাহলে তাদেরকে আপনি বিরত রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করুন।

ফুটনোট

(১) নাসাঈ ২৫৬২,মিশকাত ৩৬৫৫
(২) মুসনাদে আহমাদ ২/৬৯
(৩) সহীহ বুখারি ৮৯৩

লেখক : মুহা: আব্দুল্লাহ আল মামুন, ঝিনাইদহ

এ জাতীয় আরো সংবাদ