আজ বুধবার,১২ই কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,২৮শে অক্টোবর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ,ভোর ৫:০৯

মারিয়া-ফাহিমের নেতৃত্বে সেইভ ইয়ুথ ইবি চ্যাপ্টার

Print This Post Print This Post

ইবি প্রতিনিধি :
সেইভ ইয়ুথ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) চ্যাপ্টারের ২০২০-২১ কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এতে কো-প্রেসিডেন্ট হিসেবে উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মারিয়া তানজিম এবং একই বিভাগের ও একই বর্ষের শিক্ষার্থী ফাহিম ফয়সাল জেনারেল সেক্রেটারি হিসেবে মনোনিত হয়েছেন।

মঙ্গলবার(১৪ অক্টোবর) বিকেলে এক ভার্চুয়াল সভার মাধ্যমে এ কমিটি ঘোষণা করেন সেইভ ইয়ুথ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের মডারেটর ও উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের প্রভাষক এ এইচ এম নাহিদ।

এসময় ইন্টারন্যাশনাল ফাউন্ডেশন ফর ইলেকটোরাল সিস্টেম এর ‘কান্ট্রি ডিরেক্টর’ সিলিয়া প্যাসিলিনা, সেইভ ইয়ুথ বাংলাদেশ এর ন্যাশনাল মডারেটর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আইনুল ইসলামসহ ১২টি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্ব-স্ব মডারেটরগণ উপস্থিত ছিলেন।

১২ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অন্যরা হলেন- টিম লিড ইয়ুথ ডিজঅ্যাবিলিটি অ্যান্ড ইনক্লুশন পদে শাহিনুর খাতুন, ইয়ুথ ভয়েস পদে আব্দুল হাদী, ইয়ুথ ইম্পেয়েবিলিটি পদে অনিক হোসেন, কানেক্টিং ডট’স পদে ফারজানা আফরিন অনু, ইভেন্ট অ্যান্ড আউটরিচ পদে সিরাজুজ্জামান, ইয়ুথ মিডিয়া পদে আব্দুল মালেক, শি লিডস্ পদে হায়াত ই জান্নান, ক্যাম্পাস র‍েসিলিয়েন্স পদে আবু জাহেদ রাইহান, ইয়ুথ মাইন্ড’স পদে শেখ ফরিদ হাসান এবং ইয়ুথ ডেমোক্রেসি পদে মাহমুদুল ইসলাম দায়িত্ব পেয়েছেন।

সদ্য নির্বাচিত কো-প্রেসিডেন্ট মারিয়া তানজিম বলেন, ‘সেইভ শুধু সংগঠন নয়, এটি একটি হাতিয়ার যা ভবিষ্যত তরুণদের সমাজের সহিংসতাকে শক্ত হাতে দমন করতে শেখায়। এসময় উদ্যমী তরুনদের নিয়ে সেইভ ইয়ুথ এর সকল এজেন্ডা এবং লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের মাধ্যমে সেইভ ইয়্যুথ ইবি চ্যাপ্টারকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।’

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের অক্টোবরে উদ্যমী তরুণদের নিয়ে সেইভ বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করে। এটি তরুণদের জন্য একটি ভিন্নধর্মী প্লাটফর্ম যেখানে শান্তির প্রচার, সহিষ্ণুতা ও বৈচিত্র্যতার প্রতি সম্মান এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ নিয়ে কাজ করে। এছাড়া সকল প্রকার সংঘাতের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালিয়ে আসছে সেইভ। সংগঠনটি শিক্ষার্থীদের নেতৃত্ব ও সক্ষমতা উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে। এ পর্যন্ত সেইভের উদ্যোগে দেশের বারোটি বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট প্রায় ১০০টিরও বেশি কর্মশালা ও বিভিন্ন অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ